মাইনাস ওয়ান ফর্মুলা! খালেদা বিদেশে যাচ্ছেন!

ঢাকা অফিস: বিএনপির নেতারা রাজি সরকারের প্রস্তাবে। সরকার বলেছে, বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া চাইলে দেশের বাইরে চিকিৎসা নিতে যেতে পারবেন। বিএনপি নেতারাও মনে করেন, জেলে থাকার চেয়ে দলীয় প্রধান দেশের বাইরে গিয়ে মুক্ত থাকলে ভালো থাকবেন। বিদেশে চিকিৎসা করানোর চেয়ে মানসিকভাবে খালেদা জিয়ার তুলনামূলক ভালো থাকাটাই মূখ্য তাদের কাছে।

সূত্র বলছে, সরকারের ইচ্ছে খালেদা রাজনীতির বাইরে রাখা। সেজন্য, নানা অঙ্ক কষা হয়েছে। বিএনপি প্রধানকে কারাগারে রেখে নির্বাচনের পথে গেলে তাতে সাধারণ মানুষের প্রতিক্রিয়া মিশ্র হতে পারে। সেটি ঠেকাতে হলে নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়। নির্বাচন নিরপেক্ষ না হলে বিশ্ব সম্প্রদায়ের কাছে সরকারের ভাবমূর্তি সঙ্কট বাড়বে। একারণে, যেই করে হোক একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানের চিন্তা আওয়ামী লীগের। আর সেটি করতে হলে খালেদাকে কারাগারে রাখা বুমেরাং হতে পারে।

সূত্র মতে, খালেদাকে জামিন দেয়া হলে সেটা সরকারের দূর্বলতাকে সামনে নিয়ে আসবে। কথা উঠতে পারে, সরকার রাজনৈতিক আক্রোশে খালেদা জিয়াকে শাস্তি দিয়েছে। উচ্চ আদালত জামিন দিলে আর খালেদা মুক্তি পেলে রাজনীতি-বিষয়ক প্রচারণা জোরালো হবে। সেটি কোনভাবেই সরকারের পক্ষে যাবে না। এছাড়াও, আরো নানা যুক্তি আর বিশ্লেষণের মধ্য দিয়ে সরকারের নীতি নির্ধারকরা খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্তে থিতু হয়েছেন। অন্যদিকে, বিএনপি নেতারা মনে করেন, যেই করে হোক, আওয়ামী লীগ আরেকবার ক্ষমতায় আসতে মরিয়া। খালেদা জিয়া কোথায় আছেন বা থাকবেন, বিচার্য নয়।

বিএনপি’র সূত্র জানায়, সরকারের ইচ্ছের কথা জানানো হয়েছে দলের নির্ধারনী মহলে। লন্ডন আর কারাগার, দুই জায়গা থেকে গ্রীন সিগনাল পাওয়ার পর এখন চলছে জনগণের চক্ষুধোলাইয়ের কাজ। আর সেটি শুরু হয়ে গেছে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি’র সিনিয়র নেতাদের বক্তব্যের মধ্য দিয়ে। দু’পক্ষই খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় বিদেশ যাবার কথা বলছেন।
আওয়ামী লীগ সূত্রমতে, আওয়ামী লীগ মনে করে আরেকবার ক্ষমতায় আসা তাদের জন্য কোন বিষয় নয়। কিন্তু, সেটি বিনাবিতর্কে করতে পারা বড় চ্যালেঞ্জ। খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে সে চ্যালেঞ্জে জয়ী হওয়া কঠিন হবে। বাইরে রাখলে আরো কঠিন।
সূত্র বলছে, সবকিছু পরিকল্পনা মতো এগুলে খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য ব্যবস্থা শুরু হতে পারে যে কোন দিন। আপাতত সিদ্ধান্ত, তিনি লন্ডন যাবেন। সেখানে তার চিকিৎসা চলবে, তেমনটাই আওয়ামী লীগ বিএনপি প্রচার করবে।
সূত্র মতে, আগামী সপ্তাহে সবকিছু খোলাসা হয়ে যেতে পারে। সরকারের ইচ্ছের সাথে এক হয়ে বিএনপি নেতারা খালেদাকে দেশের বাইরে পাঠাতে রাজি হলে “মাইনাস ওয়ান” ফর্মুলা বাস্তবায়নে সফল হবে সরকার।

Recommended For You