“গণতন্ত্রের উপাধি দিয়ে খালেদার দুর্বৃত্তায়ন ঢাকা যাবে না”

ঢাকা অফিস: গণতন্ত্রের উপাধি দিয়ে খালেদা জিয়া ও তার পরিবারের দুর্নীতি, অগ্নিসংযোগ ও রাজনৈতিক দুর্বৃত্তায়ন ঢাকা যাবে না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। রোববার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সম্প্রসারিত মিলনায়তনে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদ আয়োজিত ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

ড.হাছান মাহমুদ বলেন, রাজনৈতিক কারণে বেগম খালেদা জিয়া জেলে যাননি। তিনি দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামি হিসেবে জেলে গিয়েছেন। তিনি রাজবন্দী নয়। এফবিআই এসে তারেক রহমানের দুর্নীতির স্বাক্ষী দিয়ে গেছে। বেগম জিয়া তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় জরিমানা দিয়ে কালো টাকা সাদা করেছেন। এসব অর্থ দুর্নীতির টাকা।

গতকাল বিএনপির মহাসচিব জাতির সঙ্গে মসকারা করেছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন,  মির্জা ফখরুল খালেদা জিয়াকে ’মাদার অব ডেমোক্রেসি’ উপাধি দিয়েছেন। আসলে হওয়া উচিৎ ছিল ’মাদার অফ থিফ’।  তার (খালেদা জিয়া) গণতন্ত্রের নমুনা হচ্ছে ৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারির নির্বাচন। সে সময় বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সংসদে পাঠিয়েছেন। তার গণতন্ত্রের নমুনায় ২০১৩-১৪ সালে মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে। তার নাম হবে ‘মাদার অফ হরর এন্ড টেরর’।

তিনি আরও বলেন, খালেদা জিয়া রাজনৈতিক দুর্বৃত্তায়ন করেছে। এমন কি তার ছেলেদের দুর্নীতির গন্ধও ছড়িয়ে পড়েছে। তাই আমি বলবো ফখরুল জাতির সঙ্গে মসকারা করেছে। আমাদের নেত্রীকে (শেখ হাসিনা) কোন উপাধি আওয়ামী লীগ দেয়নি। তাকে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম ও জাতিসংঘ উপধি দিয়েছে।

সংগঠনের কার্যকরী সভাপতি ও সবুজবাগ থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লায়ন চিত্ত রঞ্জন দাসের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, সাবেক স্বরাষ্ট্রপ্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু, অ্যাডভোকেট জাফর ইকবাল, সংগঠনের সভাপতি মো.জিন্নাত আলী জিন্নাহ, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মো.শাহদাত হোসেন টয়েল প্রমুখ।

Recommended For You

Leave a Reply